rss

সেহরি ও ইফতার | রমজান-

শিরোনাম
বাংলাদেশের পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে ফ্রান্স, বিৃবতিতে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র <> 'অধিকার' সম্পাদক আদিলুর রহমান খান ও পরিচালক নাসির উদ্দিন এলানের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন <> অবরোধকারীদের ছোড়া পেট্রল বোমায় দগ্ধ বীমা কর্মকর্তা শাহীনা আক্তার (৩৮) ও ফল ব্যবাসায়ী মো. ফরিদ (৫০) মারা গেছেন <> সংখ্যালঘুদের ওপর বারবার হামলা হলে তার পরিণাম হবে আত্মঘাতী, মন্তব্য যোগাযোগমন্ত্রীর <> ভারতের মহারাষ্ট্রে চলন্ত ট্রেনে আগুন লেগে এক নারীসহ অন্তত ৯ জন নিহত
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ১৯ জুন ২০১৫, ০১:৫৯:২৬অ-অ+
printer

বিস্ময়কর মুস্তাফিজ

সৌমিত জয়দ্বীপ
কখনও কখনও গল্পগুলো রূপকথার মতো মনে হয়। যে ছেলেটি এই তো সেদিনও জাতীয় দলের নেটে এসে বল করতেন, তিনিই এখন রীতিমতো 'টক অব দ্য নেশন!'
গতকাল ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে মুস্তাফিজুর রহমানকে যেভাবে একের পর এক প্রশ্ন করে যাচ্ছিলেন ভারতীয় সাংবাদিকরা তাতে মনেই হচ্ছিল, দারুণ বিস্মিত হয়েছেন তারা এই 'বিস্ময় বালকে'র বোলিং দেখে। তীর্যক কোনো প্রশ্ন করার সুযোগই ছিল না। 'কে এই মুস্তাফিজ' জাতীয় জিজ্ঞাসাগুলোরই যেন নিপাট সোজাসাপ্টা উত্তর খুঁজছিলেন তারা। ভারতেও তো মুস্তাফিজকে নিয়ে আগ্রহটা ততক্ষণে উত্তুঙ্গ হয়ে যাওয়ার কথা!
ঠিক এক বছর এক দিন আগের কথা। ২০১৪ সালের ১৭ জুন অভিষেক হয়েছিল ১৯ বছরের তরুণ তাসকিন আহমেদের। প্রতিপক্ষ ছিল এই ভারত। সেই ম্যাচে ২৮ রানে ভারতের পাঁচ ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়েছিলেন তাসকিন। সেই ভারত। সেই মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম। ১৭ জুনের পরিবর্তে ১৮ জুন। অভিষেক হলো ১৯ বছর বয়সী বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের। সাফল্যে সেই তাসকিনেরই পুনরাবৃত্তি করলেন মুস্তাফিজ। ৫০ রানে নিলেন ৫ উইকেট। বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে অভিষেকেই পাঁচ উইকেট নেওয়ার প্রথম নজির গড়েছিলেন তাসকিন আহমেদ। সেই ভারতের বিপক্ষেই দ্বিতীয় নিদর্শন গড়লেন মুস্তাফিজ। দেখার মতো তার বোলিং বিশ্লেষণ :৯.২-১-৫০-৫!
এত বড় ঘটনা ঘটিয়ে দেওয়ার পরও মুস্তাফিজ বেশ নির্লিপ্ত। চোখেমুখে অবয়বে এখনও বালকসুলভ ভাবটা রয়েই গেছে সাতক্ষীরার এ তরুণের। কথাবার্তাতেও রয়ে গেছে জড়তা! পাকিস্তানের বিপক্ষে টি২০-তে পাকিস্তানিদের চমকে দিয়েছিলেন। এবার চমকে দিলেন সবাইকে। মুস্তাফিজও যেন বুঝতে পারছিলেন না, কী করেছেন তিনি! প্রশ্নের উত্তরগুলো দিতে গিয়ে তাই কখনও কখনও মনে হচ্ছিল তার শরীর কাঁপছে, কখনও কাঁপছে গলা! তবে, এসব মৃদু কথার মধ্যেও আসল কথাটা ঠিকই বের করে আনা যায়। যেমনটা বললেন মুস্তাফিজ। অভিষেক ম্যাচে এত বড় সাফল্য নিয়ে কোনো চিন্তা ছিল কি-না প্রশ্ন করতেই বললেন, 'না, আমি তো দলের জয়ে ভূমিকা পালন করতে চেয়েছি। দেশকে ভালো কিছু দিতে চেয়েছি।'
জানার আগ্রহ থেকেই জানতে চাওয়া_ এমন পারফরম্যান্সের পর কাকে বেশি মনে পড়ছে? বললেন, তার সেজো ভাই মোখলেসুর রহমানের কথা। 'সাতক্ষীরা থেকে আমাদের বাড়ি আরও প্রায় ৪০ কিলোমিটার দূরে। আমার সেজো ভাই আমাকে প্রতিদিন সকাল সাতটায় শীতের মধ্যে মোটরসাইকেলে করে নিয়ে যেতেন। তখনও যে আমি সাতক্ষীরাই চিনতাম না!'
অধিনায়ক মাশরাফির কণ্ঠেও তার প্রশংসা। মাশরাফিই সাধারণত নতুন বলে বল করেন। কাল করলেন না। বল হাতে দিলেন মুস্তাফিজের। কেমন লাগছিল তখন? 'খুবই ভালো লাগছিল মাশরাফি ভাই যখন বলটা হাতে তুলে দিলেন।' আর মাশরাফির কথা, 'আমার ওর ওপর পুরোপুরি আস্থা ছিল। আরাফাত সানি গত কিছুদিন ধরে দারুণ বল করছে। তবুও, চার পেসার খেলানোর কথা এ কারণেই মাথায় এসেছিল যে, মুস্তাফিজের মতো বোলারকে বাইরে বসিয়ে রাখাটা ঠিক মনে হচ্ছিল না। ওর কাটারটা আমার কাছে সবসময়ই খেলার জন্য দুরূহ মনে হয়েছে। আমি এজন্যই ভারতকে একটু চমকে দিতে চেয়েছিলাম। আমার বিশ্বাস, ওর বোলিং বিশ্বের যে কোনো উইকেটেই বেশ কার্যকর হবে।'
যে কাটারে গতকাল মুস্তাফিজ একে একে ফেরালেন রোহিত, রাহানে, রায়না, অশ্বিন ও জাদেজাকে, সেই কাটারের রহস্যটা জানতে চাওয়া হলে বললেন, 'অনূর্ধ্ব -১৯-এর নেটে বিজয় ভাই (এনামুল হক) বলেছিলেন তাকে কাটার দিতে। কয়েকটা বল করার পর বিজয় ভাইকে আউটও করলাম। তখন থেকেই বুঝেছি যে, এই বলটা আমি অনুশীলন করলে করতে পারব।'
রানের জন্য দৌড় দেওয়া যে মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গে সংঘর্ষে মুস্তাফিজকে কিছুক্ষণের জন্য মাঠের বাইরে চলে যেতে হয়েছিল, সেই ভারত অধিনায়কও তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন সংবাদ সম্মেলনে। মুস্তাফিজ আসলেও এক বিস্ময়ের নাম!
মুস্তাফিজের আলোকিত অভিষেকে বাংলাদেশ ম্যাচ জিতল। অভিষেকেই ম্যাচসেরা মুস্তাফিজ! এটাই ছিল বাংলাদেশের মুস্তাফিজ-চমক!
মন্তব্য
সর্বশেষ ১০ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
এই পাতার আরো খবর
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved