rss

সেহরি ও ইফতার | রমজান-

শিরোনাম
বাংলাদেশের পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে ফ্রান্স, বিৃবতিতে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র <> 'অধিকার' সম্পাদক আদিলুর রহমান খান ও পরিচালক নাসির উদ্দিন এলানের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন <> অবরোধকারীদের ছোড়া পেট্রল বোমায় দগ্ধ বীমা কর্মকর্তা শাহীনা আক্তার (৩৮) ও ফল ব্যবাসায়ী মো. ফরিদ (৫০) মারা গেছেন <> সংখ্যালঘুদের ওপর বারবার হামলা হলে তার পরিণাম হবে আত্মঘাতী, মন্তব্য যোগাযোগমন্ত্রীর <> ভারতের মহারাষ্ট্রে চলন্ত ট্রেনে আগুন লেগে এক নারীসহ অন্তত ৯ জন নিহত
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ০৯ জানুয়ারি ২০১৪অ-অ+
printer

খালেদা জিয়া যেসব সুবিধা আর পাবেন না

সমকাল প্রতিবেদক
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সরকারি বেশ কিছু সুযোগ-সুবিধা হারাচ্ছেন। নতুন সরকার শপথ নেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে খালেদা জিয়ার সব
সরকারি সুযোগ-সুবিধা প্রত্যাহার করা হবে। বিরোধীদলীয় নেতার পাশাপাশি মন্ত্রীর পদমর্যাদায় খালেদা জিয়া সরকারি যেসব সুবিধা পেতেন, নতুন সরকার গঠিত হওয়ার পরপরই তাও থাকবে না। ১৯৯১ সালের পর এবারই প্রথম খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী বা বিরোধীদলীয় নেতার পদে থাকবেন না।
একাধিক সূত্র জানায়, সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা পদটি একজন পূর্ণ মন্ত্রীর পদমর্যাদার। বেতন-ভাতাসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাও মন্ত্রীর মতো পান। তাকে ঢাকা মহানগর পুলিশ থেকে একজন হেড কনস্টেবল, একজন নায়েক, ছয়জন কনস্টেবলসহ আটজন হাউস গার্ড দেওয়া হয়। এর বাইরে স্পেশাল ব্রাঞ্চ (এসবি) থেকে দু'জন গানম্যান পালাক্রমে নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করেন। বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে পুলিশ প্রটেকশন এখনও বহাল আছে। তবে তিনি বর্তমানে বাসার বাইরে না যাওয়ায় প্রটেকশনের দায়িত্বে থাকা পুলিশের দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে না। নতুন সরকার শপথ নেওয়ার পর পর তার পুলিশ প্রটেকশনও থাকবে না।
বিরোধীদলীয় নেতা সরকারি একজন একান্ত সচিব (পিএস), একজন সহকারী একান্ত সচিব (এপিএস), দু'জন ব্যক্তিগত কর্মকর্তা, একজন বাহক, দু'জন এমএলএসএস ও একজন বাবুর্চি পেয়ে আসছিলেন। গাড়ির সুবিধাও পেয়ে থাকেন বিরোধীদলীয় নেতা। তবে খালেদা জিয়া সরকারি বাসায় থাকেন না। জানা গেছে, রাজধানীর মিন্টো রোডে বিরোধীদলীয় নেতার জন্য বরাদ্দ করা সরকারি বাড়িটি সংস্কার করা হচ্ছে। বাড়ি থেকে পুরনো মালপত্র সরানো হচ্ছে। নতুন বিরোধীদলীয় নেতা মিন্টো রোডের সরকারি বাসভবনে উঠবেন কি-না, তা জানা যায়নি ।
বিরোধীদলীয় নেতা বেতন পান ৫৩ হাজার ১০০ টাকা। এ ছাড়া চিকিৎসা, ভ্রমণসহ অন্যান্য ক্ষেত্রেও সুবিধা পেয়ে থাকেন। বিরোধীদলীয় নেতার পদ হারানোর ফলে খালেদা জিয়া এসব সুযোগ-সুবিধা আর পাবেন না।
এদিকে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু সমকালকে বলেন, নতুন সংসদ না হওয়া পর্যন্ত প্রধান বিরোধী দলের নেতা হিসেবে খালেদা জিয়া যে নিরাপত্তা ও সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছিলেন, তা বহাল থাকবে। নতুন সংসদ গঠন করা হলে তখন তিনি জাতীয় সংসদের বিরোধী দলের প্রধান হিসেবে থাকতে পারছেন না। তাই তার আর আগের সুযোগ-সুবিধা বহাল থাকবে না। তবে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও একটি বৃহত্তর দলের প্রধান হিসেবে বিধান অনুযায়ী তাকে প্রাপ্য নিরাপত্তা দেওয়া হবে।

মন্তব্য
সর্বশেষ ১০ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved