rss

সেহরি ও ইফতার | রমজান-

শিরোনাম
বাংলাদেশের পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে ফ্রান্স, বিৃবতিতে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র <> 'অধিকার' সম্পাদক আদিলুর রহমান খান ও পরিচালক নাসির উদ্দিন এলানের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন <> অবরোধকারীদের ছোড়া পেট্রল বোমায় দগ্ধ বীমা কর্মকর্তা শাহীনা আক্তার (৩৮) ও ফল ব্যবাসায়ী মো. ফরিদ (৫০) মারা গেছেন <> সংখ্যালঘুদের ওপর বারবার হামলা হলে তার পরিণাম হবে আত্মঘাতী, মন্তব্য যোগাযোগমন্ত্রীর <> ভারতের মহারাষ্ট্রে চলন্ত ট্রেনে আগুন লেগে এক নারীসহ অন্তত ৯ জন নিহত
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ০৮ জানুয়ারি ২০১৪অ-অ+
printer

রাজনৈতিক অস্থিরতায় বেড়েছে মূল্যস্ফীতি

সমকাল প্রতিবেদক
হরতাল-অবরোধসহ রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে ডিসেম্বরে মূল্যস্ফীতি বেড়েছে। বিশেষ করে খাদ্যপণ্যের দাম উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে। ডিসেম্বরে পয়েন্ট টু পয়েন্ট ভিত্তিতে সাধারণ মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৭ দশমিক ৩৫ শতাংশ। নভেম্বরে এ হার ছিল ৭ দশমিক ১৫ শতাংশ। গত জুলাই থেকে ধারাবাহিকভাবে মূল্যস্ফীতি কমে এলেও নভেম্বর থেকে আবারও ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। এদিকে ২০১৩ সালে (জানুুয়ারি-ডিসেম্বর) গড় মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৭ দশমিক ৫৩ শতাংশ। ২০১২ সালে এ হার ছিল ৬ দশমিক ২২ শতাংশ। চলতি ২০১৩-১৪ অর্থবছরের বাজেটে গড় মূল্যস্ফীতি ৭ শতাংশের মধ্যে রাখার লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার আগারগাঁওয়ের পরিসংখ্যান ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মূল্যস্ফীতির হালনাগাদ তথ্য প্রকাশ করেন বিবিএস মহাপরিচালক গোলাম মোস্তফা কামাল। তিনি বলেন, মূলত রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণেই ডিসেম্বরে মূল্যস্ফীতি বেড়েছে। রাজনৈতিক অস্থিরতায় প্রতিটি ক্ষেত্রেই পণ্য পরিবহন ব্যাহত হচ্ছে, যার প্রভাব মূল্যস্ফীতিতে পড়ছে। হরতাল-অবরোধ থাকলে গ্রাম থেকে যেমন ঢাকায় খাদ্য আসা ব্যাহত হয়, তেমনি খাদ্যবহির্ভূত পণ্য দেশের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে পেঁৗছতে পারে না। এর প্রভাব মূল্যস্ফীতিতে পড়ে বলে জানান তিনি।
এ পরিস্থিতিতে দু'মাস ধরে বাড়তে থাকা খাদ্য মূল্যস্ফীতির হার দুই অঙ্কের ঘরে পেঁৗছানোর আশঙ্কা রয়েছে কি-না জানতে চাইলে মহাপরিচালক বলেন, দেশে চালসহ বিভিন্ন খাদ্যপণ্যের যথেষ্ট মজুদ রয়েছে। পরিবহনের সংকট না থাকলে এটা দুই অঙ্কে পেঁৗছানোর কথা নয়।
বিবিএস জানায়, গেল ডিসেম্বরে মূলত খাদ্যপণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় সামগ্রিক মূল্যস্ফীতি বেড়েছে। ওই মাসে খাদ্যসূচকে মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৯ ভাগ। নভেম্বরে খাদ্য মূল্যস্ফীতি ছিল ৮ দশমিক ৫৫ ভাগ। তবে খাদ্যবহির্ভূত মূল্যস্ফীতি আগের মাসের তুলনায় কমে হয়েছে ৪ দশমিক ৮৮ ভাগ। নভেম্বরে এ হার ছিল ৫ দশমিক ০৮ ভাগ।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, নভেম্বরের তুলনায় ডিসেম্বরে চাল, ডাল, আটা, মাছ, মাংস, ফল, মসলা, ভোজ্যতেল ও দুধসহ খাদ্যসামগ্রীর দাম বৃদ্ধির কারণে খাদ্য মূল্যস্ফীতি বেড়েছে। এ খাতে আগের মাসের তুলনায় শূন্য দশমিক ৭৮ ভাগ মূল্যস্ফীতি হয়েছে। নভেম্বরে এ খাতে শূন্য দশমিক ৪৭ ভাগ মূল্যস্ফীতি হয়েছিল।
বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ও উন্নয়ন গবেষণা সংস্থা বিআইডিএস গবেষণা পরিচালক জায়েদ বখত মনে করেন, রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা বন্ধ না হলে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে। তিনি বলেন, রাজনৈতিক অস্থিরতা চলতে থাকলে দেশের বিনিয়োগসহ সার্বিক অর্থনীতি চরম ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তখন সাধারণ মানুষের আয় কমে যাওয়ার পাশাপাশি বেকারত্ব বাড়বে।
বিবিএস জানায়, ডিসেম্বরে গ্রামাঞ্চলে পয়েন্ট টু পয়েন্ট ভিত্তিতে সার্বিক মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৭ দশমিক ২২ শতাংশ। নভেম্বরে এ হার ছিল ৬ দশমিক ৯২ শতাংশ। ওই মাসে গ্রামে খাদ্য মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৮ দশমিক ৬৩ শতাংশ। নভেম্বরে হয়েছিল ৮ দশমিক ০৬ শতাংশ। আর গ্রামে খাদ্যবহির্ভূত খাতে মূল্যস্ফীতি ৪ দশমিক ৬৯ শতাংশ, নভেম্বরে এ হার ছিল ৪ দশমিক ৮৮। ডিসেম্বরে শহর এলাকায় সার্বিক মূল্যস্ফীতি হয়েছে আগের মাসের সমান ৭ দশমিক ৫৮ ভাগ। এর মধ্যে খাদ্য মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৯ দশমিক ৮৯ ভাগ, যা নভেম্বরে ছিল ৯ দশমিক ৬৭ শতাংশ। আর খাদ্যবহির্ভূত মূল্যস্ফীতি ৬ দশমিক ৩৫ ভাগ থেকে কমে ৫ দশমিক ১৩ ভাগ হয়েছে।
মন্তব্য
সর্বশেষ ১০ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
এই পাতার আরো খবর
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved